Text size A A A
Color C C C C
পাতা

প্রকল্প

 

                                       প্রকল্প সমূহ :

 

১। একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্প :

লক্ষ্য :

‘‘একটি বাড়ি একটি খামার’’ প্রকল্পের মূল লক্ষ্য প্রতিটি পরিবারকে মানব ও অর্থনৈতিক সর্বোত্তম ব্যবহারের মাধ্যমে টেকসই আর্থিক কার্যক্রমের একক হিসেবে গড়ে তোলার মধ্য দিয়ে ২০১৫ সালের মধ্যে জাতীয় দারিদ্র ৪০% থেকে ২০%-এ নামিয়ে আনা।

উদ্দেশ্য সমূহ :

*        দরিদ্র/ অতিদরিদ্র (প্রতি গ্রামে ৬০টি) পরিবার সহ সমিতিভূক্ত সকল পরিবারকে গ্রাম সংগঠনের মাধ্যমে প্রতিটি গ্রামকে অর্থনৈতিক কর্মকান্ডের মূল কেন্দ্র হিসেবে গড়ে তোলা।

*        গ্রামের প্রতিটি পরিবারকে কৃষি, মৎস্যচাষ, পশুপালন,ইত্যাদি কাজের মাধ্যমে একটি কার্যকর ‘‘খামার বাড়ি’’ হিসেবে গড়ে তোলা।

*        প্রতি গ্রাম থেকে ৫ জন করে ( কৃষি, পশুপালন, হাঁস-মুরগী পালন, মৎস্য চাষ, বৃক্ষ নার্সারী ও হটিকালচার ট্রেডের প্রতি বিষয়ে একজন)  সদস্যকে জীবিকা ভিত্তিক প্রশিক্ষণ দিয়ে খামার স্বেচ্ছাসেবী গঠন করা এবং অন্যান্য বিষয়ে গ্রামকর্মী সৃজন করা।

*        ঋণ সহায়তার মাধ্যমে গ্রামের  পরিবারে  খামার বা জীবিকাভিত্তিক কার্যক্রম নিশ্চিত করা।

*        প্রকল্প থেকে গ্রাম সংগঠনের অতিদরিদ্র/ দরিদ্র সদস্যদের মাসিক সঞ্চয়ের বিপরীতে সমপরিমান কন্ট্রিবিউটরি মাইক্রো সেভিংস প্রদানের মাধ্যমে প্রতিটি পরিবারের ব্যক্তি সঞ্চয় বছরে ন্যূনতম ৫,০০০/- টাকায় উন্নীত করা যা ২ বছরে ১০ হাজার এবং ৫ বছরে ৪০ হাজার টাকায় উন্নীত হবে।

*        ব্যক্তি তহবিলে কন্ট্রিবিউটরী অর্থের অতিরিক্ত প্রতিটি সংগঠনকে বছরে তাদের নিজস্ব সঞ্চয়ের সমপরিমাণ প্রকল্প থেকে মূলধন সহায়তার মাধ্যমে দু’বছরে মোট ৯০,০০,০০০/- টাকা গ্রাম সংগঠন তহবিল গড়ে তোলা।

 

২। পিআরডিপি-২ :  ২০০০ সালে প্রাথমিক ভাবে টাংগাইল, কুমিল্লা ও মেহেরপুর এই প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। পরবর্তীতে ২০০৫ সালে বর্ধিত আকারে ঐ তিনটি জেলায় এবং ২০১০ সালে বাংলাদেশের সকল জেলায় ১০০টি ইউনিয়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে, যার মেয়াদকাল আপাতত জুন/২০১৪ সাল পর্যন্ত রয়েছে। পরবর্তীতে এর সফলতার উপর ভিত্তি করে প্রকল্পের মেয়াদ বর্ধিত/ স্থায়ীভাবে মূল কার্য্যক্রমের সাথে অন্তর্ভূক্ত করা হবে।

প্রকল্পের মূল উদ্দেশ্য :

 

ক) ছোট ছোট গ্রামীণ অবকাঠামো নির্মান, যার ৭০% পিআরডিপি-২ বহন করবে এবং বাকী ৩০% গ্রামবাসী ও ইউপির মাধ্যমে বাস্তবায়িত হবে। উল্লেখ্য, এক্ষেত্রে গ্রামবাসীর ইউপি ট্যাক্স পরিশোধ করতে হবে।

খ) বিভিন্ন প্রশিক্ষণ কর্মসূচী যেমন : কৃষি, প্রাণী, মৎস্য, সেলাই, স্বাস্থ্য এর মাধ্যমে গ্রামবাসীকে যথাযথ দক্ষ করে তোলা।

গ) মাসিক ইউনিয়ন সমন্বয় কমিটির মাধ্যমে ইউনিয়নে কর্মরত সকল সরকারী- বেসরকারী জাতি গঠনমূলক বিভাগ, ইউপি সদস্যসহ সকলকে জবাবদিহিতার আওতায় আনা ।

৩। আবর্তক কৃষি ঋণ প্রকল্প :সরকারী অর্থায়নে সমিতির মাধ্যমে ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান প্রকল্প।

৪। পল্লী দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচী (পদাবিক) :সরকারী অর্থায়নে দরিদ্র জন গোষ্টির আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গ্রপ/দল এবং মাধ্যমে ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান কর্মসূচী।

৫। সমন্বিত দারিদ্র বিমোচন কর্মসূচী (সদাবিক):সরকারী অর্থায়নে দরিদ্র জন গোষ্টির আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গ্রপ/দল এবং মাধ্যমে ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান কর্মসূচী।

৬। পল্লী প্রগতি প্রকল্প :সরকারী অর্থায়নে দরিদ্র জন গোষ্টির আর্থ সামাজিক উন্নয়নে গ্রপ/দল এবং মাধ্যমে ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান কর্মসূচী।

৭। অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তার পোষ্যদের আত্মকর্মসংস্থান প্রকল্প :সরকারী অর্থ দ্বারা অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ও তার পোষ্যদের আত্মকর্মসংস্থানের জন্য ঋণ প্রদান প্রকল্প।